বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কুলিয়ারচরে এমপিওভুক্ত হল ৩ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১ নভেম্বর থেকে কার্যকর হচ্ছে সড়ক পরিবহন আইন ক্যাসিনো সংশ্লিষ্ট ২২ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি কারাগারে নওয়াজ শরিফকে বিষ দেওয়া হচ্ছে, ছেলের অভিযোগ চট্টগ্রাম মিরসরাইয়ের নতুন চারটি মাদ্রাসা এমপিওভুক্ত কুলিয়ারচরে একটি রাস্তা নির্মাণের দাবী দীর্ঘ দিনের মাতুয়ারকান্দা বাসীর আমিই পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে উন্নত মানুষ : ট্রাম্প মৌলভীবাজারে মাদক,সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদ ও গুজব সম্পর্কে সচেতনতামূলক মতিবিনিময় সভা কুলিয়ারচর উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি লিঃ এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত মৌলভীবাজারের রাজনগরে ৩ কিঃমিঃ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ লাইনের উদ্ভোধন
শ্রীলঙ্কায় বিতর্কিত ম্যাচ জিতে সিরিজ বাংলাদেশের

শ্রীলঙ্কায় বিতর্কিত ম্যাচ জিতে সিরিজ বাংলাদেশের

চেকপোস্ট ডেস্ক : বিতর্কিত আম্পায়ারিংয়ের ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলকে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ আনঅফিসিয়াল ওয়ানডেতে ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৯৮ রানে জিতেছে বাংলাদেশ। ব্যাট হাতে দারুণ এক সেঞ্চুরির পর বোলিংয়েও অবদান রেখেছেন সাইফ হাসান। প্রথম ম্যাচে বড় ব্যবধানে হারা বাংলাদেশ পরের দুটিতে জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তুলল। ৩২২ রান তাড়ায় ২৪.৪ ওভারে শ্রীলঙ্কা ৬ উইকেটে ১৩০ রান করার পর আলোকস্বল্পতায় আর খেলা সম্ভব হয়নি।

কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শনিবার টস হেরে ব্যাট করতে আগের ম্যাচে ঝড় তোলা নাঈম চড়াও হন বোলারদের ওপর। কিন্তু বিতর্কিত আম্পায়ারিংয়ের কারণে ভাঙে ১২০ রানের উদ্বোধনী জুটি। ‘অবস্ট্রাক্টিং দা ফিল্ড’ এর দায়ে আউট হন ৭৬ বলে দুই ছক্কা ও ৫ চারে ৬৬ রান করা নাঈম। এই আউটের সিদ্ধান্তে উত্তাপ ছড়ায় মাঠে। মিনিট দশেক খেলা বন্ধ থাকে। এরপর উইকেটে এসে আবারও ব্যর্থ হন নাজমুল হোসেন শান্ত এবং এনামুল হক।

চতুর্থ উইকেটে সাইফের সঙ্গে ৯৯ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। ১১০ বলে ১২ চার ও তিন ছক্কায় ১১৭ রান করে সাইফ প্যাভিলিয়নে ফিরেন। ৩৫ বলে এক চার ও দুই ছক্কায় ৩২ রানে থামেন অধিনায়ক মিঠুন। এরপর আর তেমন কোনো জুটি গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। আফিফ হোসেন, আরিফুল হক, নুরুল হাসান সোহানরা কেউই বড় স্কোর গড়তে পারেননি। তারপরও সবার ছোট-ছোট অবদানে স্কোর তিনশ ছাড়ায়। শ্রীলঙ্কার শিরান ফার্নান্দো ৫০ রানে ৪টি আর বিশ্ব ফার্নান্দো ৬৯ রানে ৩ উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই বাংলাদেশি বোলারদের তোপের মুখে পড়ে স্বাগতিকরা। পাথুম নিসানকাকে দ্বিতীয় ওভারে ফিরিয়ে দেন আফিফ। আরেক ওপেনার সান্দুন বিরাক্কডিকে বোল্ড করে বিদায় করেন বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার। তৃতীয় উইকেটে কামিন্দু মেন্ডিস ও আশান প্রিয়াঞ্জনের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ে শ্রীলঙ্কা। কিন্তু ৩৪ রান করা প্রিয়াঞ্জনকে থামিয়ে ৬৪ রানের জুটি ভাঙেন সাইফ। পরে তুলে নেন প্রিয়মল পেরেরার উইকেট।

আশেন বান্দারাকে ফিরিয়ে শিকার শুরু করা ইবাদত হোসেন পরের ওভারে ফিরিয়ে দেন পুরো সিরিজ জুড়ে বাংলাদেশকে ভোগানো কামিন্দু মেন্ডিসকে। কামিন্দু ৬৫ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে করেন ৫৫ রান। এর দুই বল পরেই আলোকস্বল্পতায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। বাংলাদেশের সাইফ ও ইবাদত ২টি করে উইকেট নেন। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ৯৮ রানের জয় তুলে নিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। তবে নাঈমের ওই আউট নিয়ে ম্যাচ রেফারির কাছে অভিযোগ জানানোর ঘোষণা দিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!