সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
নবীগঞ্জে রিকশা চালিয়ে সংসার চালায় শিশু শাহিনুর; ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম মাধবপুরে প্রাইভেটকার দিয়ে গাঁজা পাচারের সময় ২ পাচারকারী আটক সৈয়দপুরে জেলার ১ হাজার পরিবহন শ্রমিককে ত্রানের চাল প্রদান সৈয়দপুরে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় দুইটি নৈশকোচ আটক সৈয়দপুরে পৌরসভার উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মাঝে ১৫ মেট্রিক টন ত্রাণের চাল বিতরণ ঝুঁকি নিয়ে সাভার ছাড়ছে শ্রমিক মানিকহাট ইউনিয়নে হতদরিদ্র ৩ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ মাধবপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে সেনাবাহিনীর তৎপরতা অব্যাহত ইসলামপুরে ডা.এম এম খান এর উদ্যোগে জীবাণুনাশক স্প্রে তজুমদ্দিনে মাদ্রাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে জমি দখলের উদ্দেশ্যে গাছ কাটার অভিযোগ
কেউ মারা না গেলেও জরুরি অবস্থা জারি করলো নিউজিল্যান্ড

কেউ মারা না গেলেও জরুরি অবস্থা জারি করলো নিউজিল্যান্ড

WELLINGTON, NEW ZEALAND - MARCH 25: Prime Minister Jacinda Ardern declares a State of National Emergency declared to fight COVID-19 ahead of a nationwide lockdown on March 25, 2020 in Wellington, New Zealand. New Zealand will go into lockdown from 11:59pm on Wednesday, as the COVID-19 alert level rises to four. All non-essential businesses will close at that time, including bars, restaurants, cinemas and playgrounds. Schools are closed and all indoor and outdoor events are banned. Essential services will remain open, including supermarkets and pharmacies. The New Zealand Prime Minister Jacinda Ardern expects measures will remain in place for about four weeks, and has said there will be zero tolerance for people ignoring the restrictions, with police able to enforce them if required. New Zealand currently has 205 confirmed cases of COVID-19. (Photo by Hagen Hopkins/Getty Images)

নিউজিল্যান্ডে জরুরি অবস্থা ঘোষনা করা হয়েছে। দেশটির সরকার করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এই পদক্ষেপ নেয় বলে জানিয়েছে সিএনএন।

এর আগে, মঙ্গলবার আগাম সতর্কতা অবলম্বন করে এক মাসের লকডাউন ঘোষণা দিয়ে জনগণকে ঘরে থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্ন। নিউজিল্যান্ডে একদিনে ৪০ জন আক্রান্ত হলে এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৫ জনে। তবে এ পর্যন্ত ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি।

জরুরি অবস্থা ঘোষনার পর দেশটির নাগরিক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী পেনি হেনারে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘জরুরি অবস্থা হালকাভাবে নেয়ার জন্য করা হয়নি। আমরা সবাই যদি নিজের পক্ষ থেকে কাজ করে ঘরে বসে থাকি তবে আমদের প্রাণ রক্ষা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!