শুক্রবার, ১০ Jul ২০২০, ০৬:০৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে আলোচনায় চেয়ারম্যান মুসা! চাল চুরির সত্যতা যাচাই বাচাই পূর্বক সু-ষ্পষ্ট মতামত দিতে জেলা প্রশাসককে নির্দেশ! ঢাকার বুকে মাটির ১১১ ফুট নিচে হচ্ছে পাতালরেল হবিগঞ্জে গরুর খামারে সফল কাউসার মিয়া শায়েস্তাগঞ্জে আটটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০৭ জন শিক্ষক- কর্মচারী প্রনোদনা পেল আ’লীগকে ক্ষমতায় রাখতেই দল নিবন্ধন আইন করার উদ্যোগ সন্তান দত্তক নিয়ে গৃহকর্মী বানালেন বাবা-মা সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই চুনারুঘাটে ত্রান সহায়তা দিলেন সহোদর দুই ভাই ঈশ্বরদী থানার নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা
১৭২০ সালে প্লেগ,১৮১৯ সালে কলেরা,১৯২০ সালে ফ্লু,২০২০ সালে করোনা ভাইরাসের আক্রমণে মহামারী

১৭২০ সালে প্লেগ,১৮১৯ সালে কলেরা,১৯২০ সালে ফ্লু,২০২০ সালে করোনা ভাইরাসের আক্রমণে মহামারী

মোহাম্মদ হায়দার আলী, বিশেষ প্রতিনিধি::

গত ১৭২০,১৮২০,১৯২০সাল ও বর্তমানের ২০২০ সালের ভয়াবহ মহামারীর ঐতিহাসিক ঘটনায় পাওয়া যায় ভয়াবহ মহামারির কথা।আর এই মহামারী গুলুতে মারা যায় কোটি কোটি মানুষ। বর্তমানে দেশে চলছে করোনা ভাইরাস নামের ভয়ানক মহামারী। সৃষ্টি কর্তাই ভাল জানেন এর আদি রহস্য কি?সকল সৃষ্টিরই তার মিকট আত্মসমর্পণ করা দরকার।না হয় কারও কোন শক্তি নেই এই মহামারী হতে বাঁচিবার!কার,কখন, কোথায় মৃত্যু হবে কেও জানে না।তাই সৃষ্টি কর্তাকে স্মরন করা সকলের প্রয়োজন। গত ১৭২০ সাল হতে বর্তমান ২০২০ সাল পর্যন্ত মহামারীর একটা ঐতিহাসিক চিত্র নিন্মে তুলে ধরা হল

১)১৭২০ সালে ভয়াবহ মহামারীর ঘটনাঃ-

গত ১৭২০ সালে প্লেগ রোগে সারা পৃথিবীতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঘটে ২০ কোটি মানুষের।পৃথিবীর ইতিহাসে কোন একক রোগে এত মানুষের মৃত্যু ইতিপূর্বে আর ঘটেনি। ঐ সময়ে শুধু ইউরোপেই মারা গেছিল তাদের অর্ধাংশ জনসংখ্যা। এই মৃত্যুর ঐতিহাসিক নাম দেওয়া হইয়েছিল ‘দ্য ব্ল্যাক ডেথ’ বা কালো মৃত্যু।মধ্যযুগীয় ইতিহাস গবেষক ফিলিপ ডেইলিভার তার এক নিবন্ধনে লিখেছেন, চার বছর মেয়াদি প্লেগ মহড়ায় ইউরোপের ৪৫-৫০ ভাগ জনসংখ্যা বিলীন হয়ে যায়,যা প্রায় ২০ কোটি।।

২)১৮২০সালের মহামারীর ঘটনাঃ-

গত ১৮২০ সালে সারাবিশ্ব কলেরা রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঘটে ৪ কোটি মানুষের।সে সময় কলেরা রুপ নেয়
এক ভয়াবহ মহামারীতে। ইতিহাসবিদদের মতে, সেই সময়ে অল্পদিনের ব্যবধানে হাজার হাজার আক্রান্ত ব্যক্তিরা মারা যান এবং প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা এমন হারে বেড়েছিল, তা রীতিমতো উদ্বেগজনক ছিল। বিভিন্ন পরিসংখ্যান বলছে ঐ সময়ের কলেরা এতটাই মহামারি ছিল যে- চীন, রাশিয়া ও ভারতে কলেরায় আক্রান্তে অন্তত ৪ কোটি মানুষের মৃত্যু ঘটে।

৩)১৯২০ সালের মহামারীর ঘটনাঃ-

গত ১৯২০ সালে স্প্যানিস ফ্লু তে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঘটে প্রায় ১০ কোটি মানুষের।প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর পরই  পৃথিবী জুড়ে শুরু হয়েছিল এই নতুন যুদ্ধ। সারা পৃথিবীকে গ্রাস করেছিল মরণব্যাধি সেই ‘স্প্যানিস ফ্লু’। ‘স্প্যানিস ফ্লু’ নামের সেই মহামারীতে দুই বছরে সারা পৃথিবীতে মানুষ মারা গিয়েছিল ০৪ কোটির বেশি।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যদিও বলছে সংখ্যাটি আসলে পাঁচ কোটি ছিল। কারণ ভারতবর্ষে যে এক কোটি মারা গিয়েছিলেন সেটি প্রথম রেকর্ডে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। কোনো কোনো গবেষকের মতে,মৃতের সংখ্যাটি প্রকৃতপক্ষে প্রায় ১০ কোটি। এই জীবাণু ঝড়ের গতিতে ছড়িয়ে পড়ায় নির্বিচারে বেশি প্রকোপ দেখা গিয়েছিল ২০ থেকে ৪০ বছরের বয়সের মানুষের মধ্যে।

উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলোতে মূলত আক্রমণ হলেও সারা পৃথিবীর কোনো দেশই মুক্তি পায়নি এ জ্বরের ছোবল থেকে। মৃতের সংখ্যা এত বিশাল ছিল যে, ট্রলিতে লাশ বোঝাই করে শহর থেকে সরাতে হয়েছে।ঐতিহাসিক সুত্রমতে শতাব্দীর ২০ তম বছর গুলুতে এই মহামারীর রোগ গুলু প্রকাশ পাচ্ছে গত১৭২০ সাল হতে এর আদি রহস্য সৃস্টি কর্থাই একমাত্র ভাল জানেন।বর্তমান ২০২০ সালেও চলছে
এক ভয়ানক মহামারী।

৪)২০২০ সালের মহামারীর নামঃ-

বর্তমান ২০২০সালে সারাদেশে চলছে কোরনা ভাইরাস নামের এক ভয়ানক মহামারী।কোভিআইডি নাইনটিন নামে এক ভয়াবহ ভাইরাসের ফলে চীন সহ সারাদেশে আজ ১৭/৩/২০২০ইং পর্যন্ত লক্ষাদিকেরও বেশি লোক আক্রান্ত হয়েছে।এবং এতে ৪ হাজার এর অধিক মৃত্যু বরণ করেছে। এখনও থেকে থেমে নেই সেই ভাইরাসের আক্রমণ। প্রতিদিন দেশে আক্রান্ত হচ্ছে অসংখ্য মানুষ।আজ পর্যন্ত বাংলাদেশে ৮ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে আইইডিসিআর।এই মানব মৃত্যুকুপের আদি রহস্য মহান সৃষ্টি কর্তাই ভাল জানেন।সকল সৃষ্টির উচিত তার নিকট আত্মসমর্পণ করা।তিনিই একমাত্র শক্তিশালী, মহান মালিক। সংগৃহীত

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!