বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৪৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
সৈয়দপুরের তিন পুলিশ সদস্য পেলেন বিশেষ পুরস্কার হবিগঞ্জে বিদ্যালয়ের ভবন উদ্বোধন মাধবপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু খালেদা জিয়ার মুক্তিতে শর্ত, যা বলছে বিএনপির সিনিয়র নেতারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে কি ভাবছে সরকার? প্রয়োজনে নূরকে আইনি সহায়তা দেবেন ড. কামাল কমলগঞ্জে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা বড়লেখায় আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের জন্য উপকারভোগী পর্যায়ে সেলাই মেশিন বিতরণ মাধবপুরে থানার ওসি’র আন্তরিকাতায় পুলিশ ফাঁড়ি নির্মাণ সৈয়দপুরে ভুয়া ডাক্তারের মিথ্যা সার্জারী অপারেশনের শিকার মাদ্রাসা ছাত্র।। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবী
২৫ মিনিটের পরীক্ষায় ১৭ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার

২৫ মিনিটের পরীক্ষায় ১৭ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার

এসএসসি পরীক্ষায় গাইবান্ধার একটি কেন্দ্রে ১৭ জন পরীক্ষার্থী ও কেন্দ্র সচিবকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অমরপুর চৌমাথা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

এদিন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের ২৫ মিনিটের এমসিকিউ পরীক্ষা চলছিল। একই কেন্দ্রে নকল করার দায়ে মঙ্গলবার গণিত পরীক্ষায় চারজনকে বহিষ্কার করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, চলমান এসএসসি পরীক্ষায় মঙ্গলবার গণিত বিষয়ে পরীক্ষা চলাকালে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুরের হিসাবরক্ষক মো. আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একটি ভিজিলেন্স টিম গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অমরপুর চৌমাথা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

সেখানে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে চারজন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। ভিজিলেন্স টিম ফিরে কেন্দ্র সচিবসহ দায়িত্বপালনকারী শিক্ষকদের ব্যাপারে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে মৌখিকভাবে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। বিষয়টি জেনে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাম কৃষ্ণ বর্মণকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেন।

বুধবার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হঠাৎ উপস্থিত হন অমরপুর চৌমাথা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। পরীক্ষা কেন্দ্রের ১৩টি কক্ষে প্রবেশ করে দেখতে পান নানা অনিয়ম। ২৫ মিনিটের এমসিকিউ পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা মোবাইল ব্যবহার করছিল। একে-অপরের খাতা দেখাদেখি করছিল। সেখানে ১৭ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। ঘটনা জেনে দায়িত্ব অবহেলার দায়ে কেন্দ্র সচিব মো. রফিকুল ইসলামকে বহিষ্কার করেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।

এ ব্যাপারে কেন্দ্র সচিব মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, কেন্দ্রে ১৩টি কক্ষ রয়েছে। আমি একা তো সব সামলাতে পারি না। যারা পরীক্ষা গ্রহণের দায়িত্বে রয়েছেন তাদের বিষয়টিও তদন্ত হওয়া উচিত।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান বলেন, কেন্দ্রটি নিয়ে আমরা বিপাকে রয়েছি। তারা ভিজিলেন্স টিমকেও সহায়তা করছে না। আপাতত কেন্দ্র সচিবকে বহিষ্কার করা হয়েছে। প্রয়োজনে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করার অনুমতিসহ কেন্দ্রটি বাতিলের আবেদন করব।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!