রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

নোটিশ:
দৈনিক চেকপোস্ট পত্রিকায় সারাদেশে জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। সাংবাদিকতায় আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত ই-মেইল করুন-checkpost2015@gmail.com এ। প্রয়োজনে-০১৯৩১-৪৬১৩৬৪ নম্বরে কল করুন।
মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নেবে কাশ্মীরিরা, বললেন ইমরান খান

মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নেবে কাশ্মীরিরা, বললেন ইমরান খান

চেকপোস্ট ডেস্ক:: আন্তর্জাতিক স্তরে সমর্থন হারিয়ে হতাশা বেশ কিছুটা বেড়েই গেছে। তাই ফের কাশ্মীর নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। মানবাধিকারকে হাতিয়ার করে ভারতকে চূড়ান্ত ভয়াবহতার বার্তা শোনালেন ইমরান খান। ভারতীয় সেনার জম্মু ও কাশ্মীরে অব্যবস্থা চালিয়েছে তার উল্লেখ করেই পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে দাঁড়িয়ে এই কথা বলেছেন তিনি। পাশাপাশি এও বলেন নরেন্দ্র মোদী সরকারের এই ব্যবহারে ভারতের মানুষ আরও চরমপন্থী মনোভাবাপন্ন হয়ে উঠতে পারে।

পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “কাশ্মীরের মানুষ এবার ভারতের বিরোধিতা করবে। যা পরিস্থিতি আসছে, তাতে বিজেপি ও আর এস এসের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিতে পারে। এই কথা বলে তিনি বলেন যে, নরেন্দ্র মোদী কাশ্মীরিদের ধৈর্যর প্রীক্ষা নিচ্ছে। আমরা শান্তি চাই। পুলওয়ামায় ২০ বছরের একজন যুবক বিরক্ত হয়ে নিজেকে সশস্ত্র করে তুলেছে।”

পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী মুজাফরাবাদে শোক মিছিলে দাঁড়িয়ে যেভাবে বক্তব্য রেখেছেন সেখানে স্পষ্টভাবে বোঝা যাচ্ছে কাশ্মীর ইস্যুতে আন্তর্জাতিক স্তরে ফের কিছুটা জায়গা শক্ত করতে চাইছে পাকিস্তান। এছাড়াও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর থেকে নরেন্দ্র মোদী সরকার সেখানে যে সব নিয়ম লাগু করেছে সেসব কিছুকে আবারও সকলের কাছে তুলে ধরছেন তিনি।

মুজাফরাবাদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, পৃথিবীর সামনে তিনি কাশ্মীরের দূত হয়ে দাঁড়াবেন। আমি কাশ্মীরিদের রাষ্ট্রসংঘের সামনে অসম্মানিত করতে চাই না।” চলতি মাসের শেশের দিকেই ইমরান খান আন্তর্জাতিক মঞ্চে বক্তব্য রাখবেন।

পাক প্রধানমন্ত্রী কাশ্মীর ইস্যুকে মানবিক সংকট বলেছেন। এই বিষয়ে তিনি বলেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও ব্রিটিশ পার্লামেন্টও কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে সরব হয়েছে। মোদী সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ভারতীয় সেনা যেভাবে হিংসা ছড়াতে চাইছে তাতে কোন সাফল্য আসবে না।” তিনি আরও বলেন, ভারত এবার সবকিছুর সোজাসাপটা উত্তর পাবে। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

পাকিস্তান কাশ্মীরের পাশে ছিল ও আছে এই আশ্বাস দিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি এদিন বক্তব্য রাখেন। এই মিছিল তাঁদের কূটনৈতিক প্রচারের একটি অংশ। যার মাধ্যমে বিশ্বের বুকে কাশ্মীরিদের খারাপ অবস্থাকে আরও তিলে ধরতে চেয়েছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!