বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশ:
দৈনিক চেকপোস্ট পত্রিকায় সারাদেশে জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। সাংবাদিকতায় আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত ই-মেইল করুন-checkpost2015@gmail.com এ। প্রয়োজনে-০১৯৩১-৪৬১৩৬৪ নম্বরে কল করুন।
চেকপোস্ট’র সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন

চেকপোস্ট’র সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন

চেকপোস্ট’র সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের

উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন

 

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ৯নং নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে আগামী ১৪ অক্টোবর উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। 

সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও আ.লীগ নেতা আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন বলেছেন, তিনি সদর নোয়াপাড়া ইউ/পি পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে একটি পরিচ্ছন্ন, আধুনিক এবং নাগরিক সমস্যামুক্ত ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবেন। এ লক্ষ্যে তিনি ইতিমধ্যে ইউনিয়নের বিভিন্ন স্তরের মানুষের সাথে কথা বলে মানুষের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করেছেন। তিনি নোয়াপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যা, তার নির্বাচনী পরিকল্পনা ও চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হলে তার উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে চেকপোস্ট এর প্রতিনিধি এস.আই মামুনের  সাথে একান্ত সাক্ষাতকার দিয়েছেন।

চেকপোস্ট : আপনার নির্বাচনী প্রচারে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?

আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন: নোয়াপাড়া ইউনিয়নে উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে এ ইউনিয়নে উৎসবমুখর পরিবেশে সৃষ্টি হয়ছে। নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে জনগণের অংশগ্রহণ ততই বাড়ছে। আমি একজন প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়নের যেখানইে যাচ্ছি জনগণের ব্যাপক ভালোবাসা পাচ্ছি। আমাকে জনগণ নির্বাচনী প্রচারনায় যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তার জন্য  আমি কৃতজ্ঞ। আশা করছি পজেটিভ কিছু একটা হতে যাচ্ছে।

চেকপোস্ট: আপনি যদি নির্বাচনে বিজয়ী হোন তাহলে ইউনিয়ন বাসীর জন্য কি করবেন?

আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন: আমি নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান নির্বাচিত হলে অবহেলিত মানুষের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে চাই। ইউনিয়ন পরিষদের সেবা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদকে একটি জনবান্ধব ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। ইউনিয়নের সেবাসমূহ থেকে তৃনমূলের জনসাধারন বঞ্চিত রয়েছেন। গ্রামঞ্চলের জনসাধারন ইউনিয়ন পরিষদের কোন সেবাই পাচ্ছেন না। তাদের যে চাহিদা তা আজও পূরণ হয়নি। গ্রামের সাধারন মানুষরা আজকাল ইউনিয়ন পরিষদ থেকেও যে সেবা পাওয়া যায় সে কথা ভূলেই গেছে। আমি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহন করছি ইউনিয়ন পরিষদে জণগনের যে অধিকার আছে সেই অধিকার তাদের ফিরিয়ে দিতে। সাধারন জনগনের ঘরে ঘরে ইউনিয়ন পরিষদের সেবা পৌঁছে দিতে। আমি দলীয় বা প্রভাবশালীদের নয়, অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করতে চাই। আমি ইউনিয়নের মানুষের উন্নয়নে নিজের সর্বস্ব দিয়ে কাজ করতে চাই। আমি এমন একটি ইউনিয়ন পরিষদ গড়তে চাই যেখানে জনগনের অধিকারের প্রতিফলন ঘটবে।

চেকপোস্ট: একজন প্রার্থী হিসেবে জয়ের ব্যাপারে আপনি কতটুকু আশাবাদী?
আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন: আপনারা জানেন দেশের মোট ভোটারের অনেকটা অংশই তরুণ ভোটার। নোয়াপাড়া ইউনিয়নেও তার ব্যতিক্রম নয়। আমি বিভিন্ন গ্রামে নির্বাচনী প্রচারনায় গিয়ে মানুষের যে ভালোবাসা এবং প্রতিশ্রুতি আমার জন্য পেয়েছি তা একজন প্রার্থী হিসেবে আমি অনেক গর্ববোধ করি। জনগণ আমার পাশে থাকলে ইনশাআল্লাহ বিজয় সুনিশ্চিত।

চেকপোস্ট: আপনি যদি নির্বাচিত হোন একজন  জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনগণের জন্য বিশেষ কোন বার্তা আছে কি?

আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন: আমি যদি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই, তাহলে বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদের সাথে জনগণের বিভিন্ন সমস্যা ও সেবা প্রদানের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন গুরুত্ব পয়েন্ট, ইউনিয়ন পরিষদসহ বিভিন্ন জায়গায় বিলবোর্ডে ইউনিয়ন পরিষদের যোগাযোগ নম্বর দেওয়া থাকবে, আমার ইউনিয়নের জনগণ যেন বিলবোর্ডে দেওয়া নম্বরে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারে তাদের যে কোন সমস্যায়।

চেকপোস্ট: ইউ/পিবাসীর কাছে আপনার আহ্বান কী?

আলহাজ্ব মোঃ মহিউজ্জামান হারুন: ইউনিয়নের সর্বস্থরের মানুষকে আমার পাশে চাই। তাদের ভোট, সর্মথন ও দোয়া চাই।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!