বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশ:
দৈনিক চেকপোস্ট পত্রিকায় সারাদেশে জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। সাংবাদিকতায় আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত ই-মেইল করুন-checkpost2015@gmail.com এ। প্রয়োজনে-০১৯৩১-৪৬১৩৬৪ নম্বরে কল করুন।
কলেজ অধ্যক্ষের নারী কেলেঙ্কারি

কলেজ অধ্যক্ষের নারী কেলেঙ্কারি

চেকপোস্ট ডেস্ক: নারী কেলেঙ্কারিসহ নানা অভিযোগে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার বাইশারি সৈয়দ বজলুল হক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ কাজী মিজানুল ইসলাম মুকুলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি সাতদিনের মধ্যে তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের বিষয়ে জবাব চেয়েছে কলেজের গভর্নিং বডি।

গত শনিবার দুপুরে কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানার সভাপতিত্বে গভর্নিং বডির সভায় এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা বলেন, অধ্যক্ষ কাজী মিজানুল ইসলাম মুকুলের বিরুদ্ধে অন্য একটি কলেজের নারী লাইব্রেরিয়ানের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি নারী লাইব্রেরিয়ানের সঙ্গে অধ্যক্ষ কাজী মিজানুল ইসলামের অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস হয়। সেই সঙ্গে আপত্তিকর ওসব ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ওই ছবিতে নানা মন্তব্য করা হয়। এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। এতে কলেজের সুনাম ক্ষুণ্ন ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। তাই অধ্যক্ষকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা আরও বলেন, নারী কেলেঙ্কারি ছাড়াও অধ্যক্ষ কাজী মিজানুল ইসলাম মুকুলের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতাসহ ২১টি অভিযোগ রয়েছে। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কাছে সম্প্রতি লিখিত অভিযোগ করার পাশাপাশি তাকে তিন দফা শোকজ নোটিশ দেয়া হয়। এসবের কোনো জবাব না দেয়ায় তাকে বরখাস্ত করে অভিযোগের কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

এর আগে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ ইমতিয়াজের নারী কেলেঙ্কারি ফাঁস হয়। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ও প্রেমিকাকে না জানিয়ে তার নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে লাখ লাখ টাকা লেনদেনের ঘটনায় ইউএনও আসিফ ইমতিয়াজকে বদলি করা হয়েছে।

ইউএনওর নারী কেলেঙ্কারি ঘটনার আগে গত ২২ আগস্ট জামালপুরের ডিসির একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিসের এক নারীকর্মীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়।

এ নিয়ে জামালপুরসহ সারাদেশে নিন্দার ঝড় ওঠে। এ ঘটনায় ওএসডি হন জামালপুরের ডিসি। একই সঙ্গে ডিসি আহমেদ কবীরকে সরিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব (পিএস) মোহাম্মদ এনামুল হককে জামালপুরের নতুন ডিসি হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!