বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
তজুমদ্দিন পঞ্চপল্লী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীয়া, সাংস্কৃতিক ও এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান সম্পন্ন ঈশ্বরদীতে ছাত্রলীগের উদ্দ্যোগে শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত ক্ষনগণনা ঘড়ির শুভ উদ্বোধন মাধবপুরে আর চোখে পড়ে না বকের সারি মৌলভীবাজারের সেন্ট্রাল রোডে অগ্নিকান্ডে নিহত-৫ বরগুনায় চাল, প্রস্তুতকরণ মেশিনে চাদর পেঁচিয়ে এক জনের মৃত্যু বাহরাইনে সিলেট বিভাগীয় জাতীয়তাবাদী ঐক্য পরিষদের কমিটি গঠন ঈশ্বরদীতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত ১. হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই অটোরিকশা চালক নিহত ভাগ্নির মতো চেহারা তাই বেঁচে গেল ছাত্রী, দেখতে হলো ৩ বান্ধবীর গণধষর্ণ চীন থেকে বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে বিশেষ ফ্লাইট পাঠাবে সরকার
শেখ কামালের ৭০তম জন্মবার্ষিকী আজ

শেখ কামালের ৭০তম জন্মবার্ষিকী আজ

চেকপোস্ট ডেস্ক:: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র, বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামালের আজ ৭০তম জন্মবার্ষিকী। ১৯৪৯ সালের এই দিনে বহুমাত্রিক সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী শেখ কামাল গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ভয়াল কালরাত্রিতে মাত্র ২৬ বছর বয়সে বিপদগামী সেনা সদস্যদের হাতে বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞের শিকার হয়ে শাহাদাত বরণ করেন তিনি।

তারুণ্যের দীপ্ত প্রতীক শহীদ শেখ কামাল ঢাকার শাহীন স্কুল থেকে মাধ্যমিক এবং ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে বিএ অনার্স পাস করেন। বাংলাদেশের শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি অঙ্গনের শিক্ষার অন্যতম উৎসমুখ ছায়ানটের সেতার বাদন বিভাগের ছাত্রও ছিলেন শেখ কামাল। স্বাধীনতা উত্তর যুদ্ধ-বিধ্বস্ব বাংলাদেশ পুনর্গঠন ও পুনর্বাসন বিনির্মানে শেখ কামাল ছিলেন প্রথম সারির পুরোধা ব্যক্তিত্ব।

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী শেখ কামাল বন্ধু শিল্পীদের নিয়ে গড়ে তুলেছিলেন ‘স্পন্দন’ শিল্পী গোষ্ঠী। এছাড়া তিনি ছিলেন ঢাকা থিয়েটারের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতাও। অভিনেতা হিসেবেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যাঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত ছিলেন। শৈশব থেকে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, বাস্কেটবলসহ বিভিন্ন খেলাধুলায় প্রচন্ড উৎসাহ ছিল শেখ কামালের। তিনি উপমহাদেশের অন্যতম ক্রীড়া সংগঠন ও আধুনিক ফুটবলের প্রবর্তক আবাহনী ক্রীড়াচক্রের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।

১৯৭৫ সালের ১৪ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ব্লু’ দেশবরেণ্য এ্যাথলেট সুলতানা খুকুর সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত, সংগ্রামী ও আদর্শবাদী কর্মী হিসেবে ‘৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান ও একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ওয়ার কোর্সে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়ে মুক্তিবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন ও মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল ওসমানির এডিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শাহাদাতবরণের সময় তিনি সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের এম এ বর্ষের শেষ পর্বের পরীক্ষা দিয়েছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Checkpost Media
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!